স্বামীর সঙ্গে ঝগড়া, ৩ মিনিট পর সন্তানসহ চলন্ত ট্রেনের নিচে ঝাঁ;প দিলেন মা

পঞ্চগড়ে কোলের সন্তানকে নিয়ে ট্রেনের নিচে ঝাঁ;প দিয়ে আত্ম হ;ত্যার চেষ্টা করেছেন এক গৃহবধূ। শনিবার দুপুরে পঞ্চগড় বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম রেলস্টেশনের পাশে কমলাপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।ওই গৃহবধূ দেবীগঞ্জ উপজেলার সোনাহার এলাকার বাসিন্দা। আহত অবস্থায় শিশুসহ তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তিন মাস বয়সী মেয়েকে কোলে নিয়ে স্টেশনের পাশে বসে মোবাইলে কথা বলছিলেন ওই গৃহবধূ। এর তিন মিনিট পর পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনটি ওই এলাকা অতিক্রম করার সময় সন্তানকে নিয়েই তিনি ট্রেনের সামনে ঝাঁ;প দেন। ট্রেনটির গতি কম থাকলেও ধাক্কায় গুরুতর আহত হন ওই গৃহবধূ। তার কোলে থাকা শিশুটি রেললাইনের উপর ছিটকে পড়ে। পরে আহত মা ও সন্তানকে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। এরপর তাদের রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

মাসুদ পারভেজ নামে স্থানীয় এক শিক্ষক জানান, হাসপাতালে ওই গৃহবধূর কাছেই তার নাম জানা গেছে। মোবাইলের সর্বশেষ ডায়ালকৃত নম্বরটি তার স্বামীর। সম্ভবত তিনি স্বামীর সঙ্গে কোনো কিছু নিয়ে ঝগড়া করছিলেন।

বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম রেলস্টেশনের সহকারী স্টেশন মাস্টার মো. নাজমুল হোসেন জানান, গতি কম থাকায় পঞ্চগড় এক্সপ্রেসের চালক ট্রেনটি থামাতে সক্ষম হয়েছেন। পরে দ্রুত ঐ নারী ও তার সন্তানকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

পঞ্চগড় সদর থানার এসআই ফরহাদ হোসেন জানান, মোবাইলের সূত্র ধরে ঐ গৃহবধূর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। খবর পেয়ে তার স্বামীসহ পরিবারের লোকজন পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে যান। ধারণা করা হচ্ছে, স্বামীর সঙ্গে ঝগড়ার কারণেই তিনি আত্ম হ;ত্যার চেষ্টা করেছেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*